বিয়ের রাতেই শ্বশুরবাড়ির ছাদ থেকে লাফিয়ে পালালেন কনে

সাধারণত সিনেমাতেই এ ধরনের ঘটনা ঘটতে দেখা যায়। তবে বিয়ের রাতেই শ্বশুরবাড়ির ছাদ থেকে লাফ দিয়ে পালিয়ে গিয়ে যেন সিনেমার গল্পকেও হার মানালেন এই কনে।

ঘটনা ভারতের মধ্য প্রদেশের। সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মধ্য প্রদেশের বাসিন্দা সোনু জেইন বিয়ে করার জন্য উপযুক্ত পাত্রী পাচ্ছিলেন না। ঠিক তখনই উদল খাতিক নামে এক ব্যক্তি জানান, এক লাখ রুপির বিনিময়ে এক তরুণী সোনুকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছেন। যা পরে ৯০ হাজার রুপিতে রফা হয়।
খাতিক আনিতা রত্নাকর নামে এক নারী আর জিতেন্দ্র রত্নাকর এবং অরুণ খাতিক নামে দুই ব্যক্তিকে নিয়ে যান সোনুর কাছে। পরিবারের সবার উপস্থিতিতে আনিতাকে বিয়ে করেন সোনু। কিন্তু ওই রাতেই সবার অগোচরে ছাদ থেকে লাফ দিয়ে পালিয়ে যান আনিতা। আনিতাকে না পেয়ে পুলিশের কাছে যায় সোনুর পরিবার। আনিতাকে অবশ্য রাতের টহল পুলিশের দল খুঁজে পান।
এদিকে আনিতাকে খুঁজে পাওয়ার পর প্রতারণার অভিযোগে মামলা করেন সোনু। পুলিশ জানিয়েছে, পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সোনু। তাদের মধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।