হোটেলে নিজেরাই শৌচাগার পরিস্কার করছেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক ফলাফল মুটেও ভালোনা। তবে খেলার মাঠে নিজেদের সেরাটা দিবে এটাইতো স্বাভাবিক।

নতুন খবর হচ্ছে, বাংলাদেশে এসে যেন ‘শুচিবাই’ বাতিকে পেয়েছে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের। করোনার ভয়ে তটস্থ দলটি হোটেলে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেও নিচ্ছে না কোনো রুম সার্ভিস। এমনকি নিজ নিজ কক্ষের সাথে যুক্ত শৌচাগারও নিজেরাই সাফ করছেন।
অস্ট্রেলিয়া দল বাংলাদেশে পা রাখে গত ২৯ জুলাই। তার ৯ দিন আগে, ২১ জুলাই থেকে সিরিজ সংশ্লিষ্ট সবাই হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করেন। একাধিকবার করোনা পরীক্ষার পর তা স্পষ্টভাবেই প্রমাণিত, হোটেলের কারও মাঝে নেই করোনা জীবাণুর উপস্থিতি।

তবে অস্ট্রেলীয়রা বাংলাদেশের এই অভিজাত হোটেলে কোনো রুম সার্ভিস গ্রহণ করছে না। এমনকি শৌচাগার সাফ করার জন্যও হোটেল কর্তৃপক্ষের সহায়তা নেওয়া হচ্ছে না। স্টার্ক, হ্যাজলউডরা নিজেদের শৌচাগার নিজেরাই পরিস্কার করছেন।

খাওয়া-দাওয়ার ক্ষেত্রেও অজিরা হোটেল কর্মীদের থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে চলেছেন। বুফেতে যিনি খাবার তুলে দিচ্ছেন অজিদের প্লেটে, তিনিও অস্ট্রেলিয়ান। সফরে আসার সময় দলটি বাবুর্চিও সঙ্গে নিয়ে এসেছে।
বাংলাদেশ সফরে আসার আগেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) বেশ কিছু শর্ত জুড়ে দেয়। এক ভেন্যুতে খেলা, পুরো হোটেল বুকিং, নির্ধারিত সময়ে জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি, বিশেষ ব্যবস্থায় ইমিগ্রেশন- এসব শর্তের পাশাপাশি মাঠে নামার ২ ঘণ্টা আগে পুরো মাঠ ফাঁকা করা, জরুরী প্রয়োজন ছাড়া মাঠকর্মীদের (যারা পৃথক জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে কাজ করছে) প্রবেশ সীমাবদ্ধ রাখাসহ একগাদা শর্ত প্রযোজ্য করে রেখেছে দলটি। অস্ট্রেলিয়ার অদ্ভুত সব শর্ত মেনেই অবশ্য বিসিবি সিরিজটি আয়োজন করছে।