প’র্ন ছবি নিয়ে তরুণীদের সতর্ক করলেন মিয়া খলিফা

লেবানিজ-মা’র্কিন বংশোদ্ভূত সাবেক প্রাপ্তবয়স্ক ছবির তারকা মিয়া খলিফা। ওই দুনিয়াকে বিদায় জানালেও অনেকেই এই অঙ্গন স’ম্পর্কে তাঁর মতামত কিংবা দৃষ্টিভঙ্গি জানতে চান।

সম্প্রতি মিয়া খলিফা প্রাপ্তবয়স্ক ছবির অঙ্গনে প্রবেশে আগ্রহী তরুণীদের বেশ কিছু পরাম’র্শ দিয়েছেন। গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুসারে, মিয়া খলিফা ২০১৪ সালে মাত্র তিন মাস প্রাপ্তবয়স্কদের উপযোগী ১১টি ভিডিওতে অ’ভিনয় করেছিলেন।

তিনি ওই ইন্ডাস্ট্রি ছেড়েছেন, তা ছয় বছর হয়ে গেছে। নগদ অর্থ উপার্জনের দ্রুত হাতিয়ার হিসেবে প’র্ন ছবিতে অ’ভিনয় না করতে পরাম’র্শ মিয়ার। কারণ, তাঁর মতে, প’র্নের অ’ভিজ্ঞতা তাঁদের সারা জীবন মানসিক যন্ত্র’ণা দেবে। ভা’রতের সংবাদমাধ্যম রিপাবলিক ওয়ার্ল্ডের প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

ছয় বছরের বেশি সময় আগে প’র্ন ইন্ডাস্ট্রি থেকে অবসর নেওয়া সত্ত্বেও মিয়া খলিফা অ্যাডাল্ট ওয়েবসাইটগুলোতে আজও ব্যাপক জনপ্রিয়।

২৭ বছর বয়সী এই তারকা প’র্ন ছবিতে অ’ভিনয়ের ফলে মানসিক স্বাস্থ্য ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কথা জানান। সম্প্রতি শেয়ার করা ছোট্ট টিকট’ক ভিডিওতে মিয়াকে তাঁর অ্যাপার্টমেন্টে একটি গাউন পরিহিত দেখা যায়। এ সময় ব্যাকগ্রাউন্ডে গান বাজছিল।

ওই ভিডিওতে মিয়া খলিফা জানান, মাত্র তিন মাস ওই ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেছেন। অথচ লাখ-লাখ মানুষ তাঁকে মনে রেখেছে। তখন তাঁর বয়স ছিল ২১ বছর। আর সেসব তাঁর কাছে অস্বস্তিরও। মিয়া আরো জানান, বেশি টাকা আয়ের জন্য একজন টিকট’ক ব্যবহারকারী যখন তাঁকে নিয়ে কৌতুক করছিলেন, তখন সেটি মোটেই মজার ছিল না।

জনপ্রিয় হওয়া সত্ত্বেও তিনি তাঁর ওই সময়ের ভিডিওগুলো থেকে মাত্র ৯৬০০ মা’র্কিন ডলার উপার্জন করেছিলেন এবং প’র্ন ছাড়ার পর তিনি ওই ভিডিওগুলো থেকে কোনো অর্থও পাননি। গণমাধ্যমকে মিয়া আরো বলেছেন, তিনি ভিডিওগুলো সরানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। নিজের সোশ্যাল হ্যান্ডেলে এখন প্রায়ই মিয়াকে বিভিন্ন সচেতনতামূলক পোস্ট দিতে দেখা যায়।

বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মতে, মিয়া খলিফার সম্পদের মোট মূল্য প্রায় দুই মিলিয়ন মা’র্কিন ডলার। তিনি বর্তমানে ক্রীড়া অনুরাগী ও অন্তর্জাল তারকা হিসেবে পরিচিত। এই বছরের শুরুর দিকে মিয়া খলিফা তাঁর প্রে’মিক রবার্ট স্যান্ডবার্গের সঙ্গে বাগদান করেন।