সুশান্তের একাউন্ট থেকে কী’ভাবে গায়েব হলো ১৫ কোটি টাকা!

ভা’রতের জনপ্রিয় অ’ভিনেতা সুশান্ত রাজপুতের আত্মহ’ত্যার ঘটনায় সুপ্রিম কোর্ট সুশান্ত মা’মলা খারিজ করে দিলেও ত’দন্তের স্বার্থে এই মা’মলা খতিয়ে দেখতে শুরু করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

সুশান্তের পরিবারের তরফে দায়ের করা এফআইআর-এর কপি বিহার পু’লিশের কাছে চেয়ে পাঠাল ইডি। তারপর থেকেই জল্পনা আরও গাঢ় হচ্ছে। কী’ভাবে রাতারাতি ১৫ কোটি টাকা গায়েব হয়ে গেল সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে, সেই ত’দন্তই কি করবে ইডি।

সুশান্তের মৃ’ত্যুতে একাধিক অ’ভিযোগের আঙুল উঠেছে প্রে’মিকা রিয়ার দিকে। এবার পুরোনো সমস্ত অ’ভিযোগকেও ছাপিয়ে গেছে সুশান্তের বাবার করা বৃহস্পতিবারের অ’ভিযোগ। সুশান্তের মৃ’ত্যুর আগেই কোটি কোটি টাকা সরিয়ে নিয়েছিল প্রে’মিকা রিয়া চক্রবর্তী। প্রায় ১৫ কোটি টাকা সুশান্তের ব্যাঙ্ক থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। এমনই বিস্ফোরক অ’ভিযোগ অ’ভিনেতার বাবার।

অ’ভিনেতার বাবার করা এফআইআর-এর কপি বিহার পু’লিশের কাছে চেয়ে পাঠাল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। মৃ’ত্যুর আগে ও পরে কী’ভাবে সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে ১৫ কোটি টাকা উধাও হয়েছে, সেই টাকারই কি ত’দন্ত করবে ইডি।

কোটি কোটি টাকার হিসেব মিলছে না। কী’ভাবে রাতারাতি এই টাকা উধাও হয়ে গেল। এবার সেই অ’ভিযোগেরই কি ত’দন্ত করবে ইডি।

বিহার পু’লিশের সূত্র থেকে জানা গেছে, আর্থিক লেনদেন স’ম্পর্কিত যে অ’ভিযোগ উঠেছে তা খতিয়ে দেখারই প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে।

গতকালই মুম্বইয়ে ত’দন্তের স্বার্থে বেরিয়েছিল বিহার পু’লিশের ত’দন্তকারী দল। সুশান্তের অ্যাকাউন্ট রয়েছে যে তিনটি ব্যাঙ্কে সেখানেও হানা দেয় তারা। এমনকী’ বাড়ির পরিচারকসহ সুশান্তের প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

সুশান্তের বাড়ি থেকেও বেশ কিছু ক্রেডিট কার্ডের বিল পাওয়া গেছে, তা নিয়ে যথেষ্ট ধোঁয়াশা রয়েছে। এবং সুশান্তের প্রাক্তন বান্ধবী রিয়ারও দেখা মেলেনি বিহার পু’লিশের।

এদিকে সুশান্তের মা’মলা ত’দন্তে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন রিয়া। তারপরই সুশান্তের বাবাও সুপ্রিম কোর্ট থেকে ক্যাভিয়েট দাখিল করেছেন। অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্ট আবার সিবিআই ত’দন্ত খারিজও করে দিয়েছে। যা নিয়ে তোলপাড় হয়েছে গোটা দেশে।