এই পোস্ট ঘিরেই মাথাচাড়া দিয়েছে বিতর্ক

অভিনয়ের পর এবার যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী হয়েছেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর৷ ভোটের মাঝে রমজান হওয়াতে মুসলমান ভোটারদের জন্য রোজা রেখে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মিমি৷ তবে ভারতের অনেকে, মিমি ধর্মকে হাতিয়ার করে জয়ী হওয়ার চেষ্টা করছেন বলে দাবি করেছেন৷
ভোটের তারিখ ঘোষণার পরই তড়িঘড়ি প্রার্থী ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বিনা নোটিসেই মিমি জানতে পারেন যাদবপুর থেকে ভোটে লড়ছেন তিনি৷ তারপর আর এক মুহূর্তও দেরি করেননি৷ ওইদিন থেকেই কোমর বেঁধে লেগে পড়েন জনসংযোগের কাজে৷

ভোটের মাঝে রমজান মাস পড়ায় একে হাতিয়ার করে ভোটের প্রচারে সুর চড়িয়েছেন মিমি৷ মুসলমান ভোটারদের কষ্টে শামিল হওয়ার জন্য আগেই জানিয়েছিলেন রোজা রাখবেন বলেছিলেন৷ সেই মোতাবেক রোজাও রেখেছেন আর সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন৷

তবে, এই পোস্ট ঘিরেই মাথাচাড়া দিয়েছে বিতর্ক৷ নেটিজেনদের একাংশের দাবি, এভাবেই নাকি সাম্প্রদায়িক মেরুকরণের রাজনীতি করছেন মিমি৷ আবার অনেকেই মিমির পাশেও দাঁড়িয়েছেন৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে মিমি সৌজন্য দেখিয়েছেন বলেও দাবি অনেকের৷

জলপাইগুড়ির পাণ্ডাপাড়া থেকে পড়াশোনার জন্য কলকাতায় চলে আসেন মিমি৷ সেখান থেকে আচমকাই ছোটপর্দায় কাজ পান৷ বর্তমানে টলিউডের প্রথম সারির নায়িকা৷ ক্যারিয়ারের প্রথম ইনিংস যথেষ্ট সফল তিনি৷ দ্বিতীয় ইনিংসে রাজনীতির আঙিনায় কতটা সফল হন মিমি সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা৷