স্বামী ভেবে এক যুগ ঘর-সংসার, এরপর যা ঘটল…

By | March 7, 2022

ভাবুন তো, একজন নারী যদি একজন পুরুষকে তার স্বামী বলে মনে করেন তার সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখেন এবং হঠাৎ একদিন জানতে পারেন যে তিনি তার স্বামী নন, তার জীবনের অন্য একজন পুরুষ, তাহলে তার কী হবে? এমন ঘটনাই ঘটেছে যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী এক নারীর সঙ্গে।

ওই নারী তার স্বামীর থেকে আলাদা থাকতেন এবং তার স্বামীর সঙ্গে তার কিছু সমস্যা ছিল। যদিও সমাজ জীবনে তারা স্বামী-স্ত্রীর স্বাভাবিক সম্পর্কই বজায় রেখে চলছিলেন। হঠাৎ একদিন নারী জানতে পারেন যে, তিনি যার সঙ্গে স্ত্রী হিসেবে ঘোরাফেরা করছেন সে আসলে তার স্বামী নয়, তার আলাদা সংসার রয়েছে।

মর্মান্তিক ও একই সঙ্গে উদ্বেগজনক ঘটনাটি ঘটেছে রাস পাল ও রান্ধাওয়ারের জীবনে। তারা ১৯৭৮ সালে বার্কশায়ারের স্লো রেজিস্ট্রি অফিসে বিয়ে করেন। দুজনেই ২০০৯ সাল পর্যন্ত একসঙ্গে থাকতেন এবং তারপর একে অপরের থেকে আলাদা থাকতে শুরু করেন।

তবে তারা শুধু স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতেন। মজার ব্যাপার হলো, রান্ধাওয়া আবার বিয়ে করেছেন এবং তার একটি পুত্রসন্তানও রয়েছে। কিন্তু তার স্ত্রী এ বিষয়ে অবগত ছিলেন না। আরও আশ্চর্যের বিষয় হলো, ওই নারী নিজেও ডিভোর্স নেওয়ার বিষয়ে যথেষ্ট সচেতন ছিলেন না।

পরে বিষয়টি স্ত্রীর সামনে আসলে তিনি পারিবারিক আদালতে যান। সেখানে গিয়ে জানতে পারেন, ১২ বছর আগেই স্বামীর সঙ্গে তার বিবাহবিচ্ছেদ হয়েছে। অথচ তিনি ডিভোর্সের কোনো তারিখও জানেন না বা তিনি বিবাহবিচ্ছেদের কাগজপত্রে স্বাক্ষরও করেননি। এমন পরিস্থিতিতে বিবাহবিচ্ছেদের কথা শুনে হতবাক হয়ে যান ওই নারী।

এরপর ২০১১ সালে অন্য এক নারীকে বিয়ে করেন তিনি এবং তাদের একটি সন্তানও রয়েছে।

যুক্তরাজ্যের নতুন আইন অনুযায়ী, বিবাহবিচ্ছেদ আরও সহজ করা হয়েছে এবং বলা হয়েছে এর জন্য কোনো সরকারি ভিত্তির প্রয়োজন নেই। এপ্রিল থেকে দেশটিতে কোনো ভুল বিবাহবিচ্ছেদ কার্যকর হবে না।