ছেলের বিয়েতে অতিরিক্ত মদপানে মারা গেলেন বাবা

সাধারণ মানুষের মধ্যে মদপানের প্রচলন যত বাড়ছে ততই মস্তিষ্কের বিভিন্ন রোগের প্রাদুর্ভাব হচ্ছে। ছেলেকে বিয়ে দিতে এসে অতিরিক্ত মদপানে মারা গেছেন দিলু ডোম (৫০) নামে হরিজন সম্প্রদায়ের এক সদস্য। সোমবার (৭ মার্চ) বেলা ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। যশোর শহরের হরিজন পল্লীতে এ বিয়ের আয়োজন ছিল।

স্বজনরা জানান, রাজবাড়ী শহরের বিবেকানন্দ পল্লীর বাসিন্দা দিলু ডোমের ছেলে হৃদয় ডোমের (২২) সঙ্গে রবিবার রাতে যশোর শহরের হরিজন পল্লীর শারজিন ডোমের কন্যা সানজানার (১৮) বিয়ে হয়। দিলু ডোম তার ছেলের সঙ্গে এসেছিলেন। বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে রাতভর দিলু অন্যদের সাথে মদপান করেন। অতিরিক্ত মদপানে সোমবার বেলা ১১টার দিকে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

হাসপাতালে নেওয়ার পর জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক আহমেদ তারেক শামস বেলা ১২টার দিকে দিলু ডোমকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, অতিরিক্ত মদপানে তার মৃত্যু হয়েছে। লাশ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছ।

এদিকে, দিলু ডোমের মৃত্যুর পর সহকারী ডোম বিপুল দাস যখন লাশ হাসপাতাল মর্গে নিয়ে যাচ্ছিলেন, তখন বরযাত্রী এবং কন্যাপক্ষ এক হয়ে বিক্ষোভ করে। তারা বিপুল দাসের কাছ থেকে দিলু ডোমের লাশ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে কোতোয়ালি থানার এসআই মনিরুজ্জামান লাশ উদ্ধার করে ফের হাসপাতাল মর্গে নিয়ে যান। তখনও হরিজনরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে এবং লাশ মর্গের ভেতর নিতে বাধা দেয়।