শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন সাইমন

আলোচিত বাংলাদেশ শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদ এবার নিলো নাটকীয় মোড়। সেমাবার (৭ মার্চ) ঘোষণা এসেছে- নিপুণ-জায়েদ খান নয়, সমিতির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। এদিকে সদ্য শপথ গ্রহণ করা সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের বিরুদ্ধে ‘ছলনা’র অভিযোগ তুলে তার শপথ বাতিল করেছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন। সেখানে স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন সাইমন। এদিন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসিতে) আজ (৭মার্চ) এক সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে একথা বলেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, শুক্রবার শপথের দিন জায়েদ খান আমাকে কোর্টের একটি কাগজ দেখায়, যেটার ফটোকপি চাইলে ওইদিন আমাকে দেয়নি। পরে গড়িমসি করে রবিবার (৬ মার্চ) কাগজটি পেয়েছি। কিন্তু কাগজ কয়েকদিন আগে (২ মার্চে) যে রায় হয়েছে সেটির নয়, সেটি গত ৯ ফেব্রুয়ারির। এর মানে জায়েদ খান শপথ নেওয়ার জন্য ছলনার আশ্রয় নিয়েছেন।’

বিষয়টি ধোঁকার সঙ্গে তুলনা করে সভাপতি কাঞ্চন বলেন, ‘যেহেতু জায়েদ খান মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে ও শিল্পী সমিতিকে ধোঁকায় ফেলেছেন, সেহেতু জায়েদ খানের শপথ আর কোনোভাবে গ্রহণযোগ্য নয়। তার শপথ বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

শিল্পী সমিতির নতুন সাধারণ সম্পাদক প্রসঙ্গে কাঞ্চন বলেন, ‘যেহেতু সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে আদালতে মামলা চলছে, তাই সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করবেন। আমরা একটা জরুরি মিটিং ডেকে বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন সাইমন সাদিক। তিনি তার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বিডি২৪ লাইভকে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি ইতিবাচক ভাবছি। আমি মানসিকভাবে প্রস্তুত আছি। সমিতি দায়িত্ব দিলে আমি ভালোভাবে পালন করার জন্য প্রস্তুতও আছি। নিপুণ আপা থাকলে যে কাজ করতে পারতেন আমি তো সেটা পারবো না। তবে সবাই যে সিদ্ধান্ত নিবেন আমি মেনে নিবো। আগামী ৯ তারিখ আমরা মিটিং ডেকেছি, ওই দিন ফাইনাল সিদ্ধান্ত আপনাদের (গণমাধ্যমকে) জানানো হবে।