অন্তত সাত বছর পর বিয়ে করবো: দীঘি

শিশুশিল্পী থেকে চিত্রনায়িকার খাতায় নাম লিখিয়েছেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। এ বছরই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন তিনি। বিরতি কাটিয়ে বড় পর্দায় আবারও নিজের উপস্থিতি জানান দিয়েছেন প্রার্থনা ফারদিন দীঘি।

এরই মধ্যে ইতিহাসভিত্তিক সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন দীঘি। অংশ নিয়েছেন কয়েকটি ব্রাইডাল শুটে। সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব সিরিজেও কাজ করেছেন দীঘি। সুমন ধর পরিচালিত ‘শেষ চিঠি’ সিরিজে দেখা যাবে তাকে। এতে দীঘির বিপরীতে ছিলেন ইয়াশ রোহান।

দীঘিকে আজ সোমবার দুপুরে এক সাক্ষাৎকারে হাজির হন তিনি। সম্প্রতি বিয়ের দাওয়াত খেলেন।

বউ সাজতে বেশ লাগে দীঘির। বললেন, ‘যতবার বউ সাজছি, একেকটি নতুন লুক তৈরি হয়েছে। নিজেকে ভিন্ন ভিন্ন বউয়ের সাজে দেখতে কার না ভালো লাগে!’

কবে সত্যি সত্যি বউ সাজবেন? জানতে চাইলে হাসতে হাসতে বললেন, ‘অনেক দেরি আছে। অন্তত পাঁচ বা সাত বছর পর।

নিজের বিয়েতে কীভাবে বউয়ের সাজ সাজবেন? জানতে চাইলে বললেন, ‘আমাকে যাতে অন্য রকম লাগে। বলিউড তারকাদের মতো। তাঁদের প্রত্যেকের বিয়ের সাজ ইউনিক। আনুশকা, প্রিয়াঙ্কা, দীপিকা, ক্যাটরিনা— সবার বিয়ের সাজ আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। আমি যার থেকে যেটা বেশি পছন্দ, সেটা মাথায় টুকে রাখছি। ওদের মতো করে সাজব।’